in ,

যুবলীগ নেতা শান্তি হত্যা মামলায় ৮ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

জুমবাংলা ডেস্ক : ঝিনাইদহে ইউপি নেতা জাকির হোসেন মন্ডল ওরফে শান্তি (৪৫) হত্যা মামলায় ৮ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছে আদালত।

আজ সোমবার দুপুরে ঝিনাইদহ অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. শওকত হোসাইন এ রায় ঘোষণা করেন। মামলায় মোট আসামি ছিল ১১ জন। যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন শান্তি হোসেন (পলাতক), আ: করিম, লাভলু, আবু জাহিদ মনি, মিজানুর রহমান ওরফে টাক মিজান, মুকুল, নাসির ও ইব্রাহীম খলিল ওরফে ইদ্রিস ওরঠে ইদু (পলাতক)। এ মামলা অপর আসামি বর্তমান গান্না ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন মালিথাকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়েছে। এ ছাড়া মশিয়ার রহমান ও উজ্জল হোসেন নামে ২ আসামি মামলা চলাকালীন সময়ে মারা গেছে।

মামলা বিবরণে জানা গেছে, ২০১০ সালের ৭ জুলাই ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কাশিমপুর গ্রামের শাহার মন্ডলের ছেলেও গান্না ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন মন্ডল ওরফে শান্তি (৪৫) মোটরসাইকেলযোগে পার্শ্ববর্তী গান্না বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিল। সেসময় কাশিমপুর গ্রামের মাঠের মধ্যে চরমপন্থীরা তাকে লক্ষ্য করে ২টি বোমা নিক্ষেপ করে। বোমার স্প্রিন্টারে জাকির হোসেন গুরুতর আহত হয়। তাকে প্রথমে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে ফরিদপুর মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়। সেখানেও তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়। ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জাকির হোসেন মন্ডল ওরফে শান্তির মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় ১১ জনকে আসামি করে নিহতের শ্বশুর মো. সিরাজুল ইসলাম মালিতা বাদি হয়ে ঝিনাইদহ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।