রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে স্কুলছাত্রকে মারধর করল দুর্বৃত্তরা

জুমবাংলা ডেস্ক : বগুড়ার শাজাহানপুরে আবু তালহা নামের এক দশম শ্রেণীর ছাত্রকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারধর করেছে দুর্বৃত্তরা।

তালহা উপজেলার ফুলতলা এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে এবং ফুলতলা এলাকার সাবেক যুবলীগ নেতা নিহত আমিনুর রহমান শাহীনের ভাগিনা। সে রানীরহাট কারিগরী স্কুল এন্ড কলেজের দশম শ্রেণীর ছাত্র।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে এই মারপিটের ঘটনা ঘটে।

আবু তালহার মা স্বপ্না বেগম জানান, ছিলিমপুর পল্লী বিদ্যুতের অফিসের সামনে থেকে আবু তালহাকে ঈদগাহ মাঠে তুলে নিয়ে গিয়ে রড ও লাঠি দিয়ে মারপিট করা হয়। মারপিটে তালহার মাথা, থুতনি, হাত, পাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর কাটা জখম হয়েছে। বর্তমানে তালহাকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

স্বপ্না বেগম আরো জানান, বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনে ১৩নং ওয়ার্ডের এক কাউন্সিলর প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার অপরাধে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা তালহাকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারপিট করেছে। এর আগে গত সোমবার বিকেলে আবু তালহাকে অপহরণ করে নিয়ে গিয়ে মারপিট করে সন্ধ্যার দিকে ফুলতলা প্রাইমারী স্কুল মাঠে ফেলে রেখে যায় সন্ত্রাসীরা।

শাজাহানপুর থানার ওসি আজিম উদ্দীন জানান, এখনো অভিযোগ হয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


জুমবাংলানিউজ/এসআর