Views: 106

বিভাগীয় সংবাদ ময়মনসিংহ

শিশুর ভাঙা হাত রেখে ভালো হাতে প্লাস্টার করলেন চিকিৎসক

জুমবাংলা ডেস্ক : ইমা আক্তারের বয়স মাত্র দুই বছর। সে বাম হাতে ব্যথা পেলে নেওয়া হয় হাসপাতালে। পরীক্ষার পর তার হাত ভাঙার বিষয়টি জানতে পারে পরিবার। পরে চিকিৎসকের পরামর্শে তার হাতে প্লাস্টারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসক তার ক্ষতিগ্রস্ত হাত রেখে ভালো হাতে প্লাস্টার করে বাড়ি পাঠিয়ে দেন। অভিযোগটি উঠেছে নেত্রকোনার মদন উপজেলায়।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে মদন উপজেলার ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। হাসপাতালের সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট মেডিকেল অফিসার মো. মিরাজুল ইসলাম মিরাজ ওই শিশুর হাতে প্লাস্টার করেন। মদনের দক্ষিণপাড়া গ্রামের ইদুচানের মেয়ে ইমা আক্তার।

এ বিষয়ে ইদুচান বলেন, ‘আমার মেয়ে আজ দুপুরে ঘরের চৌকি থেকে পড়ে বাম হাতে ব্যথা পায়। এরপর তাকে মদন হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক হাতের এক্স-রে করার জন্য বললে আমি তা করে নিয়ে আসি। পরে মেয়ের ভাঙা (বাম) হাত রেখে ভালো হাতে (ডান) প্লাস্টার করে আমাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেন চিকিৎসক মিরাজুল ইসলাম। বাড়ি এসে দেখতে পাই, মেয়ের বাম হাত ফুলে গেছে। পরে সন্ধ্যায় আমার মেয়েকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডান হাতের প্লাস্টার খুলে বাম হাতে প্লাস্টার করে দেন চিকিৎসক।’

বিষয়টি স্বীকার করেছেন হাসপাতালের সাব-অ্যাসিস্ট্যান্ট মেডিকেল অফিসার মো. মিরাজুল ইসলাম মিরাজ। তিনি বলেন, ‘এটি ভুলবশত হয়েছে। এ বিষয়ে স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলেন।’

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফখরুল হাসান চৌধুরী টিপু বলেন, ‘শুনেছি ইমা আক্তার নামের এক শিশুর ভাঙা হাত রেখে ভালো হাতে প্লাস্টার করা হয়েছে। যদি পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয় তাহলে তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Share:



আরও পড়ুন

কোয়ারেন্টিনে থাকা তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে পুলিশের এএসআই গ্রেফতার

mdhmajor

কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়ায় মাস্ক বিতরণ

azad

লালমোহনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন

azad

জয়পুরহাটে বোরো ধান ঘরে তোলা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষক

azad

রিমান্ড শেষে কারাগারে বাবুল আক্তার, দেননি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

mdhmajor

লোহাগড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত

azad