অন্যরকম খবর জাতীয় রাজনীতি সিলেট

সিলেট আওয়ামী লীগের সম্মেলনে কামরান-শফিক-আসাদের কান্না

জুমবাংলা ডেস্ক: বৃহস্পতিবার সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলনে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন চার নেতাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

বিদায়ী নেতাদের মধ্যে সম্মেলনে বক্তব্য দিতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ও সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ।

দুপুরে আলিয়া মাদরাসা মাঠে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী কেঁদে কেঁদে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে অতীতে নিজের সংসদীয় আসন ছেড়ে দিয়েছি। ভবিষ্যতেও নেত্রীর নির্দেশে কাজ করব।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বদরউদ্দিন আহমদ কামরান কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আপনাদের সবার দোয়ায় আমি এখনো বেঁচে আছি। সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে হয়তো এটাই আমার শেষ বক্তব্য।

ভুলত্রুটির ক্ষমা চেয়ে কামরান কারাগারের স্মৃতিচারণ করে জীবনের শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত দলের জন্য কাজ করার অঙ্গীকার করেন। তিনি বলেন, দেশের মধ্যে অশুভ শক্তি সবসময় ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। মহানগর সভাপতি হিসেবে কাজ করতে গিয়ে আমি আমার সহকর্মী ইব্রাহিমকে হারিয়েছি। ১৮ মাস জেল খেটেছি। কুমিল্লা কারাগারে থাকা অবস্থায় আমি আমার মাকে হারিয়েছি। দায়িত্ব পালনের সব সফলতা আপনাদের, সব ব্যর্থতা আমি কাঁধে তুলে নিলাম।

আর কান্নাজড়িত কণ্ঠে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদ উদ্দিন আহমদ বলেন, শূন্য হাতে সংগঠনের দায়িত্ব নিয়ে আজ সবচেয়ে সংগঠিত মহানগর আওয়ামী লীগ। ভবিষ্যতে আর দায়িত্ব পাব কি-না জানি না। তবে আমৃত্যু দলের জন্য কাজ করে যাব।


জুমবাংলানিউজ/এইচএম




আপনি আরও যা পড়তে পারেন