in ,

স্কলারশিপ নিয়ে বিদেশে পড়াশোনা : বিশ্বের বড় সকল বৃত্তি’র তথ্য

স্কলারশিপ

ফুলব্রাইট স্কলারশিপ: ফুলব্রাইট ফরেন স্টুডেন্ট প্রোগ্রাম যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে পড়া যায় এই বৃত্তির আওতায়। ১০টি ভিন্ন একাডেমিক খাতে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

প্রাথমিক যোগ্যতা: ভালো ফলসহ ৪ বছরের স্নাতক ডিগ্রি।

সংযুক্তি: টোয়েফল স্কোর ৮০ বা আইইএলটিএস স্কোর ৭.০, নির্বাচনী ধাপে জিআরই পরীক্ষার স্কোর যুক্ত করতে হয়।

আবেদনের সময়: এপ্রিল-মে-জুন

স্কলারশিপকানাডা বৃত্তি: এডু কানাডা স্টাডি ইন স্কলারশিপ। কানাডা সরকারের অর্থায়নে স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে পড়ার সুযোগ আছে এই বৃত্তির আওতায়। চার মাস বা এক সেমিস্টারের জন্য বৃত্তি দেওয়া হয়।

কমনওয়েলথ বৃত্তি: যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে পড়ার সুযোগ মিলবে এই বৃত্তির মাধ্যমে। প্রায় ছয়টি ক্ষেত্রের বিষয়ে উচ্চশিক্ষার জন্য বৃত্তি প্রদান করা হয়।

প্রাথমিক যোগ্যতা: স্নাতকোত্তর ডিগ্রি।

আবেদনের সময়: সেপ্টেম্বর-জানুয়ারি

ফ্রান্স স্কলারশিপ: আইফেল এক্সেলেন্স বৃত্তি এই বৃত্তি নিয়ে ফ্রান্সে স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি প্রোগ্রামে ভর্তির সুযোগ আছে।

আবেদনের যোগ্যতা: ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার পাশাপাশি স্নাতক পর্যায়ে ভর্তির জন্য এইচএসসি এবং স্নাতকোত্তরে ভর্তির জন্য স্নাতকে ভালো ফল প্রয়োজন।

আবেদনের সময়: ডিসেম্বর-জানুয়ারি

ডিএএডি বৃত্তি: জার্মানির বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে বৃত্তি পাওয়া যায় ডিএএডি-এর আওতায়।

আবেদনের যোগ্যতা: ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার পাশাপাশি স্নাতক পর্যায়ে ভর্তির জন্য এইচএসসি এবং স্নাতকোত্তরে ভর্তির জন্য স্নাতকে ভালো ফল প্রয়োজন।

আবেদনের সময়: ডিসেম্বর-জানুয়ারি

রাশিয়া স্কলারশিপ: শিক্ষার্থীরা স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি কোর্সে ভর্তির জন্য বৃত্তি পাবেন। তবে সে জন্য এক বছর রুশ ভাষা শিখতে হবে।

আবেদনের সময়: সেপ্টেম্বর-ফেব্রুয়ারি

সিএসসি বৃত্তি: চায়নিজ স্কলারশিপ সেন্টারের বৃত্তির মাধ্যমে চীনা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সুযোগ আছে। বৃত্তিপ্রাপ্তদের চীনা ভাষা শেখানো হয়।

আবেদনের যোগ্যতা: ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার পাশাপাশি স্নাতক পর্যায়ে ভর্তির জন্য এইচএসসি এবং স্নাতকোত্তরে ভর্তির জন্য স্নাতকে ভালো ফল প্রয়োজন।

আবেদনের সময়: ডিসেম্বর-ফেব্রুয়ারি

এমইএক্সটি স্কলারশিপ: জাপানে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

আবেদনের যোগ্যতা: স্নাতক পর্যায়ে ভর্তির জন্য এইচএসসি এবং স্নাতকোত্তরে ভর্তির জন্য স্নাতকে ভালো ফল প্রয়োজন।

ভারত স্কলারশিপ: আইসিসিআর শিক্ষাবৃত্তি: ভারতের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক, স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডি পর্যায়ে পড়াশোনায় বৃত্তি প্রদান করা হয়।

আবেদনের যোগ্যতা: ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার পাশাপাশি স্নাতক পর্যায়ে ভর্তির জন্য এইচএসসি এবং স্নাতকোত্তরে ভর্তির জন্য স্নাতকে ভালো ফল প্রয়োজন।

আবেদনের সময়: ডিসেম্বর-ফেব্রুয়ারি

প্রেসিডেন্ট স্কলারশিপ ও এসএলআইইটি বৃত্তি: শ্রীলঙ্কার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে পড়তে বৃত্তি সুবিধা আছে।

আবেদনের যোগ্যতা: ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার পাশাপাশি স্নাতক পর্যায়ে ভর্তির জন্য এইচএসসি এবং স্নাতকোত্তরে ভর্তির জন্য স্নাতকে ভালো ফল প্রয়োজন।

তুর্কি বৃত্তি স্কলারশিপ: তুরস্কের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে বৃত্তি প্রদান করা হয়।

আবেদনের যোগ্যতা: বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সাধারণ যোগ্যতা থাকতে হবে।

সংযুক্তি : কোনো কোনো ক্ষেত্রে আইইএলটিএস স্কোর গ্রহণ করা হয়।

আবেদনের সময়: জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি

নিউজিল্যান্ড কমনওয়েলথ স্কলারশিপ: নিউজিল্যান্ডের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি পর্যায়ে পড়তে এই বৃত্তি প্রদান করা হয়। স্নাতকোত্তরের জন্য বৃত্তির মেয়াদ ১-২ বছর ও পিএইচডির জন্য সাড়ে ৩ বছর পর্যন্ত হতে পারে।

আবেদনের যোগ্যতা: স্নাতক ডিগ্রি এবং সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে ন্যূনতম ১ বছর কাজের অভিজ্ঞতা।

সংযুক্তি: আইইএলটিএস স্কোর ৬.৫ বা টোয়েফল আইবিটি স্কোর ৯০

আবেদনের সময়: ফেব্রুয়ারি-মার্চ।

বিশ্বসেরা ৬ স্কলারশিপে

উচ্চশিক্ষা গ্রহণে দেশের বাইরে যাওয়ার স্বপ্ন সবারই থাকে। কেউ হয়তো সুযোগ পান, কেউ পান না। কারণ বিদেশে পড়তে যাওয়ার খরচ অনেক। এ জন্যই মেধাবী শিক্ষার্থীরা বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কলারশিপের জন্য অপেক্ষায় থাকেন। ভাগ্যগুণে যদি স্কলারশিপ কেউ পেয়ে যান, তবে তার জীবন সার্থক।

সম্প্রতি বিশ্বসেরা ৬টি স্কলারশিপের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। এসব স্কলারশিপে আবেদন করার পর বিভিন্ন ধাপে পরীক্ষা দিতে হবে। তারপর যদি ভাগ্য ভালো থাকে, তবেই বিনা মূল্যে পড়ার সুযোগ পাবেন।

আবার অনেক সময় আইএলটিএস বা টোফেল বিদেশে পড়তে যাওয়ার ক্ষেত্রে বিরাট বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তবে জানলে অবাক হবেন, বিশ্বসেরা ৬টি বৃত্তির বিজ্ঞপ্তিতে কোনো কোনো ক্ষেত্রে এসবও লাগবে না।

আন্ডার গ্রাজুয়েট, মাস্টার্স এবং পিএইচডির ক্ষেত্রে স্কলারশিপ দেওয়া হয়। এসব বৃত্তির কয়েকটিতে চলতি মাসে এবং কয়েকটি আগামী মাস পর্যন্ত সময় নির্ধারিত রয়েছে। এ সময়ের মধ্যেই আবেদন করতে হবে।

শুধু বিনা মূল্যে পড়ার সুযোগ নয়, সঙ্গে স্কলারশিপপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা পাবেন নানা সুযোগ-সুবিধা। প্রতিবছর ৪ হাজার ৬০০ কোটি মার্কিন ডলারের এসব বৃত্তিতে শিক্ষার্থীরা টিউশন ফি, মেডিকেল ফি, ভিসা ফি এবং মাসে হাতখরচের অর্থও পান। জেনে নিন এসব স্কলারশিপ সম্পর্কে-

ক্যামব্রিজ গেটস স্কলারশিপ: যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন সময়ে বিশ্বব্যাপী নানা বৃত্তি দেয়। এ বছরের জন্য বিশ্বের অন্যতম এ প্রাচীন বিশ্ববিদ্যালয়টি দিচ্ছে গেটস ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় স্কলারশিপ। মাইক্রোসফটের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস ও তার স্ত্রী মেলিন্দা গেটস ফাউন্ডেশন এ বৃত্তির জন্য অর্থায়ন করে থাকে।

ডিপ্লোমা, মাস্টার্স ও পিএইচডির জন্য এ বৃত্তি দেওয়া হয়। এ মাসের শেষদিন পর্যন্ত এ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। স্কলারশিপপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ১ বছরে সাড়ে ১৭ হাজার পাউন্ড পাবেন। এর সঙ্গে বিমানের যাওয়া-আসার টিকিটও পাবেন। কোর্সভেদে অনেকে ৫০০-২০০০ হাজার পাউন্ড পাবেন।

ভিসা ও স্বাস্থ্যবীমার সুবিধাও রয়েছে। বিবাহিতরা যেমন সুযোগ-সুবিধা পাবেন; তেমনি সন্তান থাকলেও তার ভরণ-পোষণের জন্য ভাতা পাবেন। বছরে ১০ হাজার ১২০ পাউন্ড পাবেন প্রথম সন্তানের জন্য। আর দ্বিতীয় সন্তানের জন্য পাবেন ৪ হাজার ৩২০ পাউন্ড। ফিল্ডওয়ার্কের জন্য পিএইচডির শিক্ষার্থীরা পাবেন আলাদা অ্যালাউন্স। এ ছাড়া মাতৃত্ব ও পিতৃত্বকালীন অর্থের ব্যবস্থা আছে। বিস্তারিত জানা যাবে এ লিংকে।

কমনওয়েলথ বৃত্তি: নিম্ন ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোর শিক্ষার্থীদের যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপে মাস্টার্সে পড়াশোনা করার সুযোগ করে দেয় কমনওয়েলথ বৃত্তি। ২০২১ সালের জন্য কমনওয়েলথ স্কলারশিপের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে। কমনওয়েলথ বৃত্তির জন্য কোনো আবেদন ফি নেই।

মাস্টার্সের জন্য ১ বছর এবং পিএইচডির জন্য ৩ বছরের কমনওয়েলথ বৃত্তি দেওয়া হয়। কমনওয়েলথভুক্ত ৫৪ দেশের শিক্ষার্থীরা এ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারেন। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এ বৃত্তির জন্য আবেদন করা যাবে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ২৭ হাজার ৮০০ জন কমনওয়েলথ বৃত্তি পেয়েছেন। বিস্তারিত জানা যাবে এ লিংকে।

আজারবাইজান সরকারি বৃত্তি: এ বৃত্তি যেকোনো বিষয়ের ওপর দেওয়া হবে। স্কলারশিপটি পেলে বিনা মূল্যে পড়ার পাশাপাশি মিলবে মাসিক হাতখরচও। ওআইসিভুক্ত এবং ন্যামভুক্ত দেশগুলোর শিক্ষার্থীরা আন্ডার গ্রাজুয়েট, মাস্টার্স ও পিএইচডি ডিগ্রির জন্য আবেদন করতে পারবেন। ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এ বৃত্তির জন্য আবেদন করা যাবে। আইইএলটিএস ও টোফেল লাগবে না এ বৃত্তির আবেদনে। বিস্তারিত জানা যাবে এ লিংকে।

হাম্মাদ বিন খলিফা ইউনিভার্সিটি স্কলারশিপ: এ বছর স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডির জন্য আবেদন করা যাবে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে। দোহায় অবস্থিত এ বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ পেতে আইএলটিএস বা টোফেল লাগবে না। হাম্মাদ বিন খলিফা ইউনিভার্সিটির বৃত্তির জন্য বিশ্বের অন্য দেশের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কাতারের শিক্ষার্থীরাও আবেদন করতে পারবেন।

এ বছরের ১ ফেব্রুয়ারির মধ্য এ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে হবে। তবে কাতারের শিক্ষার্থীরা আবেদনের জন্য আরও কিছুদিন সময় পাবেন। স্নাতকে পড়ার জন্য আবাসনের সঙ্গে পাঁচ হাজার কাতারি রিয়েল পাবেন আবেদনকারী। আর সঙ্গে মিলবে বিমান টিকিট।

এসএস পড়ার জন্য এ বৃত্তি পেলে আবাসন, পাঁচ হাজার কাতারি রিয়েল ও সঙ্গে বিমান টিকিট পাবেন প্রার্থীরা। পিএইচডির ক্ষেত্রে অর্থ বাড়বে। আবাসন ও বিমান টিকিটের সঙ্গে পাবেন ৭ হাজার ৫০০ কাতারি রিয়েল। বিবাহিতদের জন্যও সুযোগ রয়েছে পরিবার নিয়ে থাকার। বিস্তারিত জানা যাবে এ লিংকে।

ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট উন্নয়ন ব্যাংক স্কলারশিপ: বিনা মূল্যে স্নাতক, মাস্টার্স, পিএইচডি ও পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা প্রোগ্রাম অধ্যয়নের জন্য ইসলামি উন্নয়ন ব্যাংক স্কলারশিপ চালু করেছে। এ স্কলারশিপের আবেদনের জন্য কোনো ফি পর্যন্ত নেওয়া হয় না। প্রায় সব বিষয়ে স্নাতক, স্নাতকোত্তর, পিএইচডি প্রোগ্রামে বৃত্তি দেয় আইডিবিএস।

নারী ও পুরুষ উভয়ই আইডিবিএস বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এ বৃত্তির জন্য আবেদন করা যাবে। মুসলিম বিশ্বের ৫৭টি দেশের শিক্ষার্থীরা এ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। বিস্তারিত জানা যাবে এ লিংকে।

সাস্কাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয় বৃত্তি: এমএস ও ডক্টরাল ডিগ্রির জন্য কানাডার সাস্কাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কলারশিপ দেওয়া হবে। আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের জন্য কানাডার একটি জনপ্রিয় বৃত্তি এটি। সাস্কাচুয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের এ বৃত্তি পেলে পড়াশোনার মাধ্যম হবে ইংরেজি। আবেদনের শেষ তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি। পিএইচডির জন্য ২০ হাজার ডলার দেওয়া হবে। আর মাস্টার্সের জন্য দেওয়া হবে ১৬ হাজার ডলার। বিস্তারিত জানা যাবে এ লিংকে ।

বিসিএস পুলিশ ছেড়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক রকিব