আন্তর্জাতিক

স্ত্রীকে ফেরাতে না পেরে গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যা

আত্মহত্যা করা যুবক ও তার স্ত্রী। ছবি : সংগৃহীত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : স্ত্রী বাবার বাড়ি চলে গেছেন।  শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনতে গেলেও ফিরে আসেননি।  স্ত্রী ছেড়ে চলে যাওয়ার হতাশায় আত্মহত্যার পথ বেঁছে নিলেন এক ব্যক্তি।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম মিডিল ইস্ট মনিটরের প্রতিবেদনে বলা হয়, মিসরের গিজা এলাকায় স্ত্রীর বাবার বাড়ি থেকে ফিরিয়ে আনতে না পেরে নিজের গায়ে আগুন ধরিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ওই ব্যক্তি।

প্রতিবদনে আরও বলা হয়, কয়েকদিন আগেই ২০ বছর বয়সী প্রকৌশলীর এক শিক্ষার্থী কায়রো টাওয়ারের ১৮৭ মিটার ওপর থেকে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করেন। তিনি মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন।

গত দুই বছরে মিসরে আত্মহত্যার হার অনেক বেড়ে গেছে। বিশেষ করে জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধি এবং বেকারত্ব বেড়ে যাওয়ায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়া লোকজনের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা বাড়ছে।

মিসরের ন্যাশনাল সেন্টার ফর ক্রিমিনাল অ্যান্ড সোস্যাল স্টাডিসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির ২৫ শতাংশ মানুষ মানসিক অবসাদে ভুগছেন যার ফলে ৬০ শতাংশের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা তৈরি হয়। দেশটিতে প্রতি তিনজনের মধ্যে একজন দরিদ্র সীমার নিচে বসবাস করে।

এর আগে গত ৩ ডিসেম্বর দেশটিতে অপর এক ব্যক্তি তার স্ত্রীর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেন। বিয়ের তিন বছর পরেও সন্তান জন্মদানে অক্ষম হওয়ায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেন তিনি।


জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


rocket

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ