জাতীয়

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফোন দিয়ে যা বলেছিলেন শাহেদ

জুমবাংলা ডেস্ক : করোনাভাইরাসের ভুয়া টেস্টে বিপুল টাকা হাতিয়ে নেয়ায় অভিযুক্ত রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহেদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে ফোন করেছিলেন। তিনি তদবিরের চেষ্টা করেন। তবে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। শাহেদের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী ক্ষুব্ধ বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। শুক্রবার (১০ জুলাই) রাজধানীতে নিজ বাস ভবনে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তার কাজের জন্য শাস্তি তাকে পেতেই হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী খুঁজছে তাকে। তবে তারও উচিত আত্মসমর্পণ করা।

রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মোহাম্মদ শাহেদ জালিয়াতির অভিযোগ এখন পলাতক রয়েছে। আত্মগোপনে থাকা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তালিকাভুক্ত এই প্রতারকের বিরুদ্ধে অভিযোগ বিস্তর। এ অবস্থায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, শাহেদ যেখানেই থাকুক পার পাবে না।

এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযানের পর ফোন করে শাহেদ তদবির করারও চেষ্টা করেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “সে আমাকে বললো আমার ওটা তো সিল করছে। জবাবে বলেছিলাম, আমি তো জানি না। “কেন সিল করছে? কেন সিল করছে? নিশ্চয়ই আপনি কিছু করেছেন। শাহেদ বলেছিল, আমাকে অ্যারেস্ট করলে? তখন বলেছি, সেটাও আমি কিছু বলতে পারব না।” এরপর শাহেদ আর কোনো ‘যোগাযোগ করেনি’ বলে জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিকে, শাহেদের বাবা সিরাজুল ইসলাম বৃহস্পতিবার করোনা নিয়ে মারা যান। শুক্রবার সকালে তার দাফন হয়। যেখানে ছিলেন না পরিবারের কেউ। তার করোনা পজিটিভ ছিল। হাসপাতালে ভর্তির পর প্রথম দুদিন বাবাকে দেখতে গেলেও রিজেন্ট হাসপাতালে অভিযানের পর থেকে আর যাননি শাহেদ। এ অবস্থায় বৃহস্পতিবার মারা যান তার বাবা।


শাহেদ শুধু প্রতারণা করেই ক্ষান্ত হননি। তার বিরুদ্ধে রয়েছে নারী কেলেঙ্কারির নানা অভিযোগ। এ ব্যাপারে শাহেদের সাবেক এক নারী সহকর্মী বলেন, অনেক রকমের মেয়েরা আসতো। স্যারের রুমে মেয়েদের নিয়ে মারতো। আমি তার খারাপ চরিত্র দেখার পরেই চলে আসি।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে রিজেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিয়ে প্রতারণার ঘটনা কীভাবে ঘটল তা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি এ ঘটনার ব্যাখ্যা চেয়েছেন বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল বলেন, “গতকাল প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এগুলো কী? কেমনে, কী করে? “জবাবে আমি বলেছি, আমি তো জানি না। একদিন দেখলাম দুটি হাসপাতাল কোভিডের জন্য উৎসর্গ করেছে। আমার কাছে সে একদিন বুক ফুলিয়ে কথা বলল। আমি বললাম, আমি তাহলে রোগী পাঠব। রোগী পাঠিয়েছি। কতজন ভালো হয়ে আসছে, তপন নামে আমাদের এক নেতা মারা গেছেন।”

রিজেন্ট হাসপাতাল থেকে করোনা এর ভুয়া প্রতিবেদন দেওয়া নিয়ে তিনি বলেন, “এগুলো প্রমাণিত হলে তাকে শাস্তি পেতেই হবে।”

করোনাভাইরাস পরীক্ষার ভুয়া প্রতিবেদন দেওয়ার ‘প্রমাণ পেয়ে’ গত সোম ও মঙ্গলবার র‌্যাবের একটি দল উত্তরা রিজেন্ট হাসপাতাল এবং তাদের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে সিলগালা করে দেয়। এই ঘটনায় উত্তরা পশ্চিম থানায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়।

মামলায় করোনা রোগীদের পরীক্ষার প্রতিবেদন নিয়ে প্রতারণা, বিশ্বাসভঙ্গ, জাল জালিয়াতি, ভুয়া রিপোর্ট তৈরি, ভুয়া রিপোর্টকে খাঁটি বলে চালিয়ে দেওয়া এবং করোনা রোগ সংক্রমণ বিস্তারে ভূমিকা রাখার অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলায় শাহেদসহ মোট ১৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে আটজনকে দুই দিনের অভিযানের সময় গ্রেপ্তার করেছিল র‌্যাব। সাহেদসহ বাকিদের গ্রেপ্তারে চেষ্টা চলছে।


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : http://bit.ly/2FQWuTP


আরও পড়ুন

সিনহা হত্যাকাণ্ড ছিল পরিকল্পিত!

Saiful Islam

প্রাথমিকের উদ্দেশে যা বললেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

Shamim Reza

রিমান্ডের আদেশের পর বিচারকের কাছে সাহেদের আবদার

Shamim Reza

ভ্যাকসিন আগে পাওয়াই এখন সরকারের মূল লক্ষ্য: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Saiful Islam

মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে সরকারের পরার্মশ

Saiful Islam

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের

Saiful Islam