in

স্বাস্থ্য খাত দীর্ঘদিন ধরে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত

জুমবাংলা ডেস্ক: জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেছেন, করোনা মোকাবিলায় অদক্ষ, দুর্নীতিগ্রস্ত, পরিকল্পনাহীন ও অদূরদর্শী স্বাস্থ্য খাতেরই চিকিৎসা প্রয়োজন। স্বাস্থ্য খাত দীর্ঘদিন ধরে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত। স্বাস্থ্য খাতের চিকিৎসা তথা কাঠামোগত সংস্কার ছাড়া করোনা নিয়ন্ত্রণসহ গণমুখী স্বাস্থ্যব্যবস্থার সফল বাস্তবায়ন সম্ভব নয়।

শনিবার কর্নেল তাহের দিবস উপলক্ষে জেএসডি আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।

ঘুণে ধরা ঔপনিবেশিক শাসনব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন করে জনগণের অংশগ্রহণভিত্তিক শাসনব্যবস্থা প্রবর্তনের মধ্য দিয়ে কর্নেল তাহেরের স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

দেশে টিকাদান পদ্ধতির সমালোচনা করে আ স ম আবদুর রব বলেন, পৃথিবীর সব দেশে বয়স্ক ও ঝুঁকিপূর্ণ নাগরিকদের দ্রুত টিকা কর্মসূচির আওতায় আনার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। এতে মৃত্যুসংখ্যা হ্রাস পায়। কিন্তু আমাদের দেশে সরকার সর্বাগ্রে বয়স্ক ও ঝুঁকিপূর্ণ নাগরিককে টিকার প্রাপ্যতা নিশ্চিত না করে শুধু বয়স কমিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছে। এটা চমক সৃষ্টির সহায়ক হতে পারে মাত্র, এতে সংকট আরও জটিল হবে।

তিনি বলেন, ১৭ কোটি জনসংখ্যার মধ্যে ১৩ কোটি ৩০ লাখ মানুষ টিকা পাওয়ার অধিকারী। প্রতিজনকে দুই ডোজ করে টিকা দিতে হলে ২৬ কোটি ৬০ লাখ টিকার প্রয়োজন। সরকার আজ পর্যন্ত সংগ্রহ করতে পেরেছে মাত্র দুই কোটি ডোজ টিকা। টিকা ক্রয়, সংগ্রহ, প্রাপ্তি এবং বিতরণ ব্যবস্থা নিশ্চিত না করে দু’দিন পরপর বয়স কমানোর ঘোষণা সরকারের চূড়ান্ত পরিকল্পনাহীনতার অংশ।

সভায় আরও বক্তব্য দেন জেএসডির কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট সা কা ম আনিছুর রহমান খান, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ সিরাজ মিয়া, কার্যকরী সাধারণ সম্পাদক শহীদ উদ্দিন মাহমুদ স্বপন, স্থায়ী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট আবদুর রহমান মাস্টার, হিরালাল চক্রবর্তী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. জবিউল হোসেন, এস এম আনসার উদ্দিন, অ্যাডভোকেট সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলাল, লোকমান হাকিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন প্রমুখ।

অনলাইনে খুব সহজে টাকা ইনকাম করার উপায়