হাঁস-মুরগীর ঘরে সুন্দরবনের ক্ষুধার্ত অজগর, তারপর……

জুমবাংলা ডেস্ক : বাগেরহাটের মোংলার একটি বাড়ির হাঁস মুরগীর ঘর থেকে সুন্দরবনের ক্ষুধার্ত অজগর সাপ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধার করা সাপটি মেরে ফেলেছে খোঁপে থাকা ৭টি হাঁসের বাচ্চা। সাপটির ওজন ৮ কেজি এবং লম্বায় ১২ ফুট অর্থাৎ ৮ হাত।

স্থানীয়রা জানান, আজ শনিবার (১০ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে মোংলা উপজেলা ৫নং সুন্দরবন ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ও সরকারি প্রাইমারী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিধান সরকারের বাড়ি থেকে অজগর সাপটিকে উদ্ধার করা হয়। ক্ষুধার্ত সাপটি খাদ্যের খোঁজে লোকালয়ে ঢুকে পড়েছিল। হাঁস-মুরগীর বাচ্চা খেতে অজগর পছন্দ করে।

প্রধান শিক্ষক বিধান সরকার জানান, বাড়ির অন্যান্যরা সাপটিকে দেখে স্থানীয় বন অফিসে খবর দেন। বন্য প্রাণী সংরক্ষণের সাথ নিয়োজিত কাটাখালী টহল ফাঁড়ির ও ওয়াইল্ডটিম ও ভিটিআরটি সিপিজি সিপিপি ও স্থানীয় জনগণ এসে অজগর সাপটিকে উদ্ধার করে বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করে। বন্যপ্রাণী বিধায় সাপটিকে হত্যা করা হয়নি।

পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই বনবিভাগের কাটাখালী টহল ফাঁড়ির ওসি মেঘনাথ বলেন, ওয়াইল্ডটিমের সদস্যরা আমাদের কাছে সাপটিকে হস্তান্তর করলে সন্ধ্যায় আমরা সুন্দরবনে পুনরায় সাপটিকে অবমুক্ত করি। ইদানীং খাদ্যের অভাবে ছোট বড় অজগর লোকালয়ে ঢুকে পড়ছে।


জুমবাংলানিউজ/এসআই