২৫ বছর বয়সে তিন বিয়ে, বউয়ের সঙ্গে অভিমানে আত্মহত্যা

প্রতীকী ছবি

জুমবাংলা ডেস্ক: বগুড়ার সদর উপজলোয় ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আশিক পাইকার (২৫) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। রবিবার (১৩ জুন) রাতে আশিকের নিজের ঘর থেকেই তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

আশিক সদর উপজলোর এরুলিয়া ইউনিয়নের শিকারপুর তালুকদারপাড়া গ্রামের কোরমান আলীর ছেলে। পেশায় তিনি ঢালাই মিস্ত্রি ছিলেন।

আশিকের স্বজনদের বরাত দিয়ে সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জহুরুল ইসলাম বলেন, আশিক তিনটি বিয়ে করেন। বর্তমানে তিনি তৃতীয় স্ত্রীকে নিয়ে সংসার করছিলেন। কিন্তু তৃতীয় স্ত্রী ইনী খাতুনের সঙ্গেও তার পারিবারিক কলহ চলছিল। এসব কারণে বেশ কিছুদিন ধরে মানসিক সমস্যায় ভুগছিলেন আশিক।

এসআই বলেন, রবিবার বিকাল থেকে সন্ধ্যার মধ্যে কোনো একসময় সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন আশিক। রাতেই তার লাশ উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সোমবার ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে।


জুমবাংলানিউজ/এসওআর