লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য

গরুর মাংসের কালা ভুনার সহজ রেসিপি

লাইফস্টাইল ডেস্ক : ঈদ উদযাপনে রসনাবিলাসে কালা ভুনা জনপ্রিয় এক পদ। গরুর মাংসের কালা ভুনা অনেকেরই পছন্দ। বিশেষ করে ভোজন রসিক মানুষের তো মুখে জল চলে আসে গরুর মাংসের কালো ভুনা নাম শুনলে। অনেকের হয়তো ধারণা গরুর মাংসের কালা ভুনা মানে, মাংস ভেজে কালো করা। কিন্তু না, গরুর মাংসের কালা ভুনা এমন একটা রেসিপি যা মশলার মাধ্যমে মাংসটাকে রান্না করে কালো করা হয়। তবে এ রেসিপিতে অনেক মশলার ব্যবহার করতে হয়। আসুন জেনে নেই গরুর মাংসের কালা ভুনার সহজ রেসিপি।

উপকরণ

২ কেজি গরুর মাংস

মরিচের গুড়া ২ টেবিল চামচ

হলুদের গুড়া ১ টেবিল চামচ

লবণ ১ টেবিল চামচ

ধনে গুড়া ২ টেবিল চামচ

পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ পরিমান

আদা বাটা ১ টেবিল চামচ

রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ

পেঁয়াজ কুচি ২ কাপ

গোল মরিচ ১০-১২ টা

কাবাব চিনি ৬-৭ টা

লং ৬-৭টা

ছোট এলাচ ৪-৫টা

তেজপাতা ৪টা

বড় এলাচ ৩-৪টা

দারুচিনি

স্টার মশলা ৩-৪টা

তেল ১ কাপ পরিমান

গোল মরিচের গুড়ো

১ চা চামচ

গরম মশলার গুড়া ১ চা চামচ

রাধুনি মসলার গুড়া ১ চা চামচ

১ টা জয়ফলের গুড়া


৩ গ্রাম পরিমাণ জয়ত্রী

জিরা গুড়া ১ চা চামচ।
বাগার দিতে যা যা লাগবে

সরিষার তেল ১ কাপ পরিমাণ

পেঁয়াজ কুচি ১কাপ,

রসুন কুচি ০.৫ কাপ পরিমাণ

আদা কুচি ০.৫ কাপ পরিমাণ

১০ টি শুকনো মরিচ

প্রণালি

প্রথমেই মাংস ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে। পানি ঝরিয়ে রান্না করার পাত্রে নিতে হবে। এবারে মাংসে সব মশলা মিশিয়ে নিন। উল্লেখিত সব মশলা দিয়ে মাখাতে হবে। মাংস চুলায় বসিয়ে জ্বাল দিবেন।। মনে রাখবেন প্রথমেই পানি দেয়া যাবে না। জ্বাল দিতে থাকলে আস্তে আস্তে মাংসের ভেতর থেকে পানি বের হবে ওই পানি দিয়েই মাংসটাকে কষানো যাবে। কষানোর পর যদি মাংস সেদ্ধ না হয় তা হলে পরিমাণ মতো একটু পানি দিবেন। পানি দিয়ে মিডিয়াম আচে মাংস জ্বাল দিতে থাকবেন। মাংসটা পুরোপুরি সিদ্ধ হয়ে গেলে অর্থাৎ রান্না হয়ে গেলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন।

এবারে রান্না মাংস বাগার দিতে হবে। একটা প্যানে তেল, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, শুকনা মরিচ ভেজে তার মধ্য রান্না মাংসটাকে দিতে হবে।। এরপর ভালোভাবে নেড়ে দিতে হবে যাতে তেলটা মিশে যায়। এভাবে কিছুক্ষন হালকা আচে চুলায় রেখে দিতে হবে এবং নাড়তে হবে যাতে লেগে না যায়। এ ভাবে প্রায় ৩০ মিনিট মাংসটাকে চুলায় রেখে নাড়তে হবে আস্তে আস্তে মাংসটা কালো হয়ে যাবে এবং মাংসে মধ্যে সব মশলা ঢুকে যাবে। এবার পেঁয়াজ বেরেস্তা উপর দিয়ে ছিটিয়ে দিন। চুলা থেকে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : http://bit.ly/2FQWuTP


আরও পড়ুন

হৃদরোগ এড়াতে ডা. দেবী শেঠির কিছু চমৎকার পরামর্শ

Shamim Reza

মোটা পুরুষের শক্তি নিয়ে চমকপ্রদ তথ্য

Shamim Reza

গবেষণা বলছে, সুন্দরী মেয়েরা পুরুষের হৃদরোগের জন্য দায়ী

Shamim Reza

৫ কারণে বুদ্ধি কমে

Shamim Reza

হঠাৎ প্রেসার কমে গেলে কি করবেন

Shamim Reza

ভিটামিন ডি পেতে কোন সময় কতক্ষণ রোদে থাকবেন?

Shamim Reza