সুদানে আরব ও আফ্রিকান সংঘর্ষ, নিহত ৩৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সুদানের দক্ষিণ দারফুরে আরব ও আফ্রিকান উপজাতিদের মধ্যকার সংঘর্ষে ৩৬ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো অন্তত ৩২ জন। স্থানীয় সময় গতকাল রবিবার উম দাফুক অঞ্চলে আবর উপজাতি তাইশা ও আফ্রিকান নৃগোষ্ঠী ফাল্লাতা উপজাতির মধ্যকার সংঘর্ষে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের পর ঘটনাস্থলে বাড়তি সেনা মোতায়েন করেছে সুদান সরকার। উম দাফুক অঞ্চলের বাসিন্দা ঈশা ওমর বলেন, সংঘর্ষের সময় হামলাকারীরা ভারী অস্ত্রের ব্যবহার করেছে।

চলতি বছর দারফু অঞ্চলে বেশ কিছু সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এপ্রিলে মাসালিত উপজাতি ও আরবদের মধ্যেকার সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৩২ জন নিহত হন। জানুয়ারি মাসে আরব ও আফ্রিকান উপজাতিদের সংঘর্ষে ২৫০ জনের বেশি মানুষ প্রাণ হারান। সম্প্রতি সুদানের প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বাশারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছে দেশটির সাধারণ মানুষ। দেশব্যাপী আন্দোলনের প্রভাব পড়েছে দারফুর অঞ্চলেও।

দারফুরে কয়েকশ’ বছর ধরে চলছে সুলতানাতের শাসন। অঞ্চলটি তিনটি স্বায়ত্তশাসিত প্রদেশ নিয়ে গঠিত। এই তিনটি প্রদেশ হচ্ছে পশ্চিম দারফুর, দক্ষিণ দারফুর ও উত্তর দারফুর। এগুলো ট্রাঞ্জিশনাল দারফুর রিজিওনাল অথোরিটি দিয়ে নিয়ন্ত্রিত। ২০০৩ সাল থেকে শুরু হওয়া যুদ্ধের ফলে অঞ্চলটিতে চলছে চরম মানবিক বিপর্যয়। এ যুদ্ধে এখন পর্যন্ত প্রাণ হারান অন্তত তিন লাখ মানুষ। বাস্তুচ্যুত হয়েছেন ২৫ লাখ। সংঘাত দমনে ব্যর্থ হয়ে দারফুর ত্যাগ করেছে জাতিসংঘ ও আফ্রিকান ইউনিয়ন।

সূত্র: আল জাজিরা।


জুমবাংলানিউজ/এসআই