Views: 292

লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য

সুন্দর ও স্বাস্থ্যকর ত্বকের জন্য প্রতিদিনের তালিকায় রাখুন এই খাবারগুলো


লাইফস্টাইল ডেস্ক: শীতের সময় স্কিন, চুল দুটোই রুক্ষ হয়ে যায়। শীতে গ্লোয়িং স্কিন ও ঝলমলে চুল পেতে চাই বাড়তি যত্ন। সেই সাথে খাবারের তালিকায়ও আনতে হবে পরিবর্তন।

এজন্য বছরের এই সময়টাতে উচিত একটি স্বাস্থ্যকর ডায়েট অনুসরণ করা এবং খাবার তালিকায় বেশ কিছু পরিবর্তন আনা।

বাদাম:

বাদামের গুণের কথা বলে শেষ করা যাবে না। বাদাম এমন একটি খাবার যা সবাই ডায়েটে যোগ করতে পারে। বাদামে যে উপাদান আছে তা স্কিনকে হাইড্রেট করে। বাদাম আপনার নখ, ত্বক এমনকি চুলকে স্বাস্থ্যকর রাখে। সেই সাথে বাদামের ভিটামিন বার্ধক্যের প্রাথমিক লক্ষণ গুলো প্রতিরোধ করে স্কিন ময়েশ্চারাইজার করে।

গাজর:


গাজরে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি রয়েছে। আর এই ভিটামিন ত্বকের কোলাজেন উৎপাদনে সাহায্য করে যা স্কিন টানটান রাখে। বলিরেখা প্রতিরোধ করতে, স্কিন টোন বাড়াতে গাজরের বিকল্প নেই।

অ্যাভোকাডো:

অ্যাভোকাডো শুধুমাত্র আপনার সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য ভালো না বরং এতে যে ভিটামিন ই, স্বাস্থ্যকর তেল রয়েছে তা স্কিনকে পুষ্টি জোগায়। অ্যাভোকাডোতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট স্কিনকে ড্যামেজ হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে।

টমেটো:

টমেটোতে লাইকোপেন নামক একটি রঙ্গক রয়েছে যা ত্বকের জন্য অনেক উপকারী। টমেটোতে অ্যান্টি-এজিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা কোলাজেনের উৎপাদনকে বাড়িয়ে ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বজায় রাখতে সহায়তা করে। রান্না করা টমেটো খাওয়ার চেষ্টা করুন কারণ লাইকোপিনের দ্রুত শোষণ ক্ষমতা রয়েছে।

গ্রিন টি:

গ্রিন টির উপকারের কথা এক কথায় বলে শেষ করা যাবে না। গ্রিন টির অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ত্বককে পুষ্টি জোগায়। ত্বকের বলিরেখা প্রতিরোধ করে। নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে ভিতর থেকে ত্বক ভালো হয়ে ওঠে।

তথ্যসূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া।


যাদের বাচ্চা আছে, এই এক গেইমে আপনার বাচ্চার লেখাপড়া শুরু এবং শেষ হবে খারাপ গেইমের প্রতি আসক্তিও।ডাউনলোডকরুন : https://play.google.com/store/apps/details?id=com.zoombox.kidschool



আরও পড়ুন

জেনে নিন, অতিরিক্ত ভিটামিন সি গ্রহণের ক্ষতিকর দিক

Sabina Sami

টনসিলের সংক্রমণ ঠেকাতে তুলসীর ভূমিকা

Sabina Sami

ঘরে বসেই তৈরি করুন রেড ভেলভেট বিস্কুট

Mohammad Al Amin

পঁচা ডিম কিভাবে চিনবেন

Shamim Reza

ওজন কমাতে সাহায্য করে ডিম

Mohammad Al Amin

ডায়বেটিস বাড়ার মূল কারন

Mohammad Al Amin